সঠিক ভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম

বর্তমান সময়ে আমাদের প্রায় সকলের কাছেই একটি মোবাইল রয়েছে। তবে তার মাঝে অধিকাংশই তাদের মোবাইলের ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে সন্তুষ্ট নন।

কেননা নতুন অবস্থায় বর্তমান সময়ের যে মোবাইল গুলো রয়েছে তার থেকে ভাল ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া গেলেও, কিছু সময় যেতেই তার থেকে বাজে ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া শুরু হয়ে যায়।

কিন্তু কেন? অবশ্য তার অনেক গুলো কারন রয়েছে।

যদি নতুন মোবাইল কেনার পর মোবাইল চার্জ দেওয়ার সঠিক নিয়ম অনুসরন করে ব্যাবহার করা যেতে পারে।

তবে অন্তত কিছু বছর কোন সমস্যা ছাড়াই, নিজের মোবাইল থেকে ভাল ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যেতে পারে।

সঠিক ভাবে মোবাইল চার্জ দেওয়ার নিয়ম
সঠিক নিয়মে মোবাইল চার্জে দেওয়ার নিয়ম জেনে নিন

সাধারণত একটি মোবাইল থেকে ১ বছরের মত সময় ধরে ভাল ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। উক্ত সময়ের পর মোবাইল ব্যাটারি গুলো আগের তুলনায় ভাল ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে পারেনা।

এই জন্য মোবাইল ব্যাটারি চার্জ করবার সঠিক নিয়ম সম্পর্কে যদি আপনি বিস্তারিত জেনে রাখেন, তবে অবশ্যই নিজের মোবাইল ব্যাটারি দীর্ঘদিন ভাল রেখে ব্যাবহার করতে পারবেন।

তাই জন্য এই পোস্টে আমরা আলোচনা করব, কি ভুল গুলোর জন্য মোবাইল ব্যাটারি বাজে হয়ে যায় ও কিভাবে মোবাইল চার্জ করতে হয় এবং মোবাইল ব্যাটারি ভাল রাখার কিছু কার্যকারী উপায়

How To Properly Charge Your Smartphone ?

মোবাইল ব্যাটারি চার্জ করবার আবার নিয়ম আছে বুঝি? হ্যাঁ অবশ্যই আছে, জেনে রাখুন যতটা সঠিক নিয়মে নিজের মোবাইল ব্যাটারি চার্জ করতে পারবেন।

ততটাই মোবাইল ব্যাটারি বেশি দিন ভাল রাখতে পারবেন

বর্তমান সময়ে আপনি লক্ষ করে দেখে থাকবেন, প্রায় প্রতিটা মোবাইল ইউজার ব্যাটারি ব্যাকআপ জড়িত সমস্যা গুলো পেয়ে থাকে।

তার কারন নতুন মোবাইল কেনার পর, যদি ভুল ভাবে মোবাইল চার্জ ও তা ব্যাবহার করবার জন্য ধিরে ধিরে মোবাইল ব্যাটারি বাজে হতে শুরু করে।

তাই জন্য শুরু থেকে যদি মোবাইল ব্যাটারি চার্জ দেওয়ার নিয়ম ও মোবাইল ব্যাটারি ভাল রাখার উপায় সম্পর্কে জ্ঞান রাখা যায়।

তবে নিজের মোবাইল ব্যাটারি দীর্ঘদিন ভাল রাখতে পারবেন।

কেবল তাই নয়, আপনি এটাও জেনে রাখুন আপনার mobile battery performance যতটা ভাল পাবেন ঠিক সেভাবে আপনার মোবাইলের পারফর্মেন্স ও ভাল পাবেন।

কেননা একটি মোবাইল ডিভাইসের শক্তির মুল উৎস হচ্ছে তার ব্যাটারি।

তবে চলুন এখন মোবাইল চার্জ দেওয়া (How To Charge Your Mobile Properly) ও মোবাইল ব্যাটারি কিভাবে ভাল রাখা যায় তা সম্পর্কে জেনে নি।

আপনি কখন মোবাইল চার্জে দিবেন

অনেকেই রয়েছেন যারা সব সময়ের জন্য মোবাইল চার্জ করতে পছন্দ করেন। তবে জেনে রাখুন একটি মোবাইল চার্জে দেওয়ার সঠিক সময় হচ্ছে তখন, যখন মোবাইলের চার্জ ৪০% নিচে থাকবে।

যদি আপনার মোবাইলে ৪০% উপরে চার্জ থাকে তবে অহেতুক তখন মোবাইল চার্জে দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। তবে দিলেও যে খুব একটা সমস্যা রয়েছে তা নয়।

মনে রাখুন বর্তমান সময়ের ব্যাটারি গুলো অনেক দ্রুত চার্জ হতে পারে, তাই জন্য ব্যাটারি ঠিক ভাবে চার্জ করাটা অনেক জরুরি।

কেননা এতে করে mobile battery life cycle ধিরে ধিরে তার কার্যক্ষমতা হারাতে থাকে।

অর্থাৎ আপনি যত বার একটি মোবাইলের ব্যাটারি চার্জ করবেন, ততবার উক্ত ব্যাটারির একটা life cycle রয়েছে তা সময়ের সাথে সাথে দুর্বল হতে থাকবে ও চার্জ ধরে রখার ক্ষমটা হারাতে থাকবে।

চার্জের পরিমান ২০% থাকতে পুরনায় চার্জ দিন

যদি আপনি মোবাইলের ব্যাটারি ২০% নিচে আসলে তারপর মোবাইল চার্জ করে থাকেন। তবে জেনে রাখুন আপনি ভুল ভাবে মোবাইল চার্জ করছেন।

সম্বব হলে চেষ্টা করবেন, মোবাইলের চার্জ কখনও ২০% নিচে নামতে দিবেন না।

অর্থাৎ মোবাইলে যখন ২০% এর মত চার্জ থাকবে তখন আবার মোবাইল চার্জ করবেন।

তবে অবশ্যই একটা বিষয় লক্ষ রাখবেন, সপ্তাহে সম্ভব হলে একবার মোবাইল ০% চার্জ করে ৯০% পর্যন্ত চার্জ করে নিবেন।

এতে করে মোবাইলের ব্যাটারি battery recalibrate হবে এবং আপনার ডিভাইস উক্ত battery level সঠিক ভাবে দেখাতে সক্ষম হবে।

অন্যথায় আপনি যদি মোবাইলের ব্যাটারি ২০% থেকে ৮০% এর মধ্যে নিয়মিত চার্জ দেওয়ার অভ্যাস করে থাকেন।

তখন মোবাইলের ব্যাটারি এই সাইকেলের বাইরে ঠিক ভাবে পারফর্মেন্স দিতে পারবে না।

ব্যাটারি ১০০% চার্জ করবেন না

বর্তমানে মোবাইল কম্পানি গুলোই বলে থাকে মোবাইলের ব্যাটারি ভাল রাখতে কখনই ১০০% অর্থাৎ ফুল ব্যাটারি চার্জ করবেন না।

আপনি লক্ষ করে দেখবেন বর্তমান যে মোবাইল গুলো রয়েছে যে মোবাইল গুলোতে ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

উক্ত মোবাইল গুলোর ব্যাটারি ১৫% থেকে ৫০% পজন্ত অতান্ত দ্রুততার সাথে চার্জ হয়ে থাকে এবং ৫০% থেকে ১০০% পর্যন্ত কিছুটা ধিরে চার্জ হয়ে থাকে।

এমন টা আসলে কেন? কারন বর্তমান মোবাইল ব্যাটারি গুলো এভাবেই তৈরি।

জেনে রাখুন মোবাইল ব্যাটারি আপনি যত বার ১০০% করে ফুল চার্জ করে নিচ্ছেন, ঠিক ততবারই মোবাইলের একটি করে battery life cycle কমিয়ে নিচ্ছেন।

ও উক্ত ব্যাটারির কার্যক্ষমতা কমিয়ে ফেলছেন।

সব সময়ের জন্য চেষ্টা করবেন মোবাইল ৯০% থেকে ৯৫% পর্যন্ত চার্জ করে নেওয়ার অভ্যাস করে তোলবার ও তা ব্যাবহার করবার।

Battery optimization apps ব্যাবহার থেকে বিরত থাকুন

বর্তমান মোবাইল গুলোতে এমনিতে battery optimization টুলস দিয়ে থাকে। যা দ্বারা কোন apps ব্যাবহার করা ছাড়াই মোবাইলের ব্যাটারি ঠিক ভাবে optimize করে নেওয়া যায়।

জেনে রাখুন আপনি জখন কোন battery optimization apps ব্যাবহার করবেন, তখন উক্ত apps দ্বারাই আপনার মোবাইলের battery damage হয়ে থাকে।

কেননা এই প্রকার apps গুলো সর্বক্ষণ background চলতে থাকে ও তার জন্য মোবাইলের battery consuming হতে থাকে।

ফলে, এই প্রকার battery optimization apss গুলো battery ভাল করতে গিয়ে তা আরও বেশি battery damage করে দেয়।

অতএব বুজতেই পারছেন, কেন আপনি এই প্রকার battery optimization apss গুলো ব্যাবহার করবেন না।

মোবাইল চার্জে দিয়ে ব্যাবহার করবেন না

মোবাইল চার্জে দিয়ে ব্যাবহার করলে খুব যে একটা ক্ষতি রয়েছে, ব্যাপার তা এমন কিছু নয়। তবে জেনে রাখুন মোবাইল চার্জে দিয়ে ব্যাবহার করলে কোথাও না কোথাও অবশ্যই তা মোবাইলের battery life এর উপর প্রভাব ফেলে।

তাই জন্য যখন মোবাইল চার্জে দিবেন তখন চেষ্টা করবেন, মোবাইল ব্যাবহার না করবার জন্য।

তবে একদমই যে ব্যাবহার করা যাবে না, তা ঠিক নয়।

চেষ্টা করবেন মোবাইল চার্জে থাকা অবশ্যই গেমস বা অনলাইনে ভিডিও না দেখবার।

কেননা এতে করে mobile hardware & other Components এর উপর প্রচুর প্রেশার পড়ে।

ফলে মোবাইল চার্জ করবার সময় তা প্রচণ্ড ধিরে চার্জ হতে পারে একই সাথে মোবাইল অতিরিক্ত গরম হয়ে যেতে পারে।

সহজ ভাবে বললে মোবাইল চার্জে দিয়ে ব্যাবহার না করাটাই সবথেকে ভাল।

সারারাত মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখবেন না

পূর্বে যে মোবাইল ব্যাটারি গুলো ছিল Lithium Ion (Li-Ion) এই প্রকার ব্যাটারি গুলোতে সারারাত চার্জে দিয়ে রাখলে খুব একটা ক্ষতি ছিল না।

তবে বর্তমান সময়ে বহুল বাবহারিত মোবাইল ব্যাটারি টাইপ হচ্ছে Lithium Polymer (Li-Poly) Batteries এই টাইপ ব্যাটারি গুলো পূর্বের ব্যাটারি এর তুলনায় বেশি শক্তিশালী।

পূর্বে সারারাত ব্যাটারি চার্জে দিয়ে রাখলে সমস্যা না হবার কারন হচ্ছে, পূর্বের ব্যাটারি গুলোতে একবার সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে গেলে উক্ত ব্যাটারি আর চার্জ নিতই না।

তবে বর্তমান সময়ের মোবাইল ব্যাটারি গুলো এমন নয়, এই প্রকার ব্যাটারি গুলো একবার চার্জ ছেড়ে দিবে আবার চার্জ নেওয়ার চেষ্টা করবে।

এবং সারারাত যদি এই একই প্রক্রিয়া বার বার হতে থাকে, তবে স্বাভাবিক ভাবেই mobile hot হয়ে যাবে ও সেই সাথে Mobile processor hot হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকবে।

এতে করে battery এবং mobile hardware দুই অকেজো হয়ে যেতে পারে। ও আপনার mobile device damage পর্যন্ত হতে পারে।

তাই জন্য কখনই সারারাত মোবাইল চার্জে দিয়ে রাখবেন না।

Original charger দিয়ে মোবাইল চার্জ করুণ

মোবাইল চার্জ করবার পূর্বে অবশ্যই লক্ষ রাখবেন আপনি যে চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করছেন তা যেন অবশ্যই original charger হয়ে থাকে।

এবং আরও জেনে রাখুন, সব সময়ই যে আসল চার্জার দিয়ে মোবাইল চার্জ করতে হবে তা নয়। তবে আপনার কাঙ্ক্ষিত device এর charging support capacity কতটা তা যাচাই করে অতঃপর উক্ত চার্জার দিয়ে চার্জ করতে পারেন।

কেননা যদি আপনি এমন চার্জার ব্যাবহার করে মোবাইল ব্যাটারি চার্জ করছেন যা আপনার device support capacity এর বাইরে তখন সমস্যা হতে পারে।

তবে কিছু সময় বাস্ততার মাঝে আপনাকে অন্য চার্জার দিয়ে চার্জ করবার প্রয়োজন পড়তে পারে।

এবং হ্যাঁ, আপনি তা নিশ্চিন্তে করতে পারে।

তবে মনে রাখবেন Low quality mobile charger কখনই নিয়মিত ব্যাবহার করে মোবাইল চার্জ করবেন না।

যদি আপনার মোবাইলের Original charger হারিয়ে গিয়ে বা নষ্ট হয়ে গিয়ে থাকে। তবে চেষ্টা করবেন পুনরায় original charger কিনে নেওয়ার, অথবা আপনার মোবাইল যত watt charger support করে সেই অনুযায়ী অন্য চার্জার ব্যাবহার করবার।

Low quality power bank ব্যাবহার করবেন না

power bank এই smart gadgets টি হচ্ছে emergency তে ব্যাবহার করবার জন্য। যখন আপনার লোকেশনে load shedding or electricity cut এর মত অসুভিধা হয়ে থাকবে তখন।

কখনই power bank ব্যাবহার করে সব সময় মোবাইল চার্জ করবেন না।

আর low quality power bank ব্যাবহার না করবার জন্য পরামর্শ থাকবে। কেননা এই প্রকার পাওয়ার ব্যাংক গুলোতে ততটা শক্তি থাকেনা যার দ্বারাতে একটি 6000mh battery খুব সহজেই চার্জ করে দিতে পারে।

যদি আপনার কাছে একটি সেরা power bank রয়েছে, তবে তখন নিশ্চিন্তে power bank ব্যাবহার করে মোবাইল চার্জ করতে পারেন।

তবে মনে রাখবেন কখনই স্থায়ী ভাবে power bank দ্বারা মোবাইল চার্জ করে নেওয়ার ভুল অভ্যাস করে নিবেন না।

Bonus tips

মোবাইলের ব্যাটারি ভাল রাখতে ও মোবাইল ব্যাটারি থেকে বেশি ব্যাকআপ পাওয়ার জন্য অবশ্যই আপনি Power saving mode ব্যাবহার করতে পারেন।

বর্তমান সময়ে প্রায় প্রতিটা মোবাইলেই এই সুভিধা দেওয়া রয়েছে। এতে করে আপনার মোবাইল ব্যাটারি ব্যাকআপ কিছুটা হলেই বৃদ্ধি করে নিতে পারবেন।

এবং যদি আপনি যে ডিভাইস টি ব্যাবহার করছেন উক্ত মোবাইলে AMOLED or Super AMOLED display রয়েছে।

তবে আপনি নিজের ডিভাইসের মাঝে Dark mood ব্যাবহার করতে পারেন এতে করে আপনার মোবাইলের battery consuming অনেক টা কমে যাবে।

এবং চেষ্টা করবেন নিজের ডিভাইসে Dark or black wallpaper ব্যাবহার করবার, এতে করেও মোবাইল থেকে একটু রকম ভাবে ব্যাটারি ব্যাকআপ পেতে পারবেন।

Conclusion

বন্ধুরা এই আর্টিকেল আমরা আলোচনা করেছি সঠিক ভাবে মোবাইল চার্জে দেওয়ার নিয়ম ও মোবাইলের ব্যাটারি ভাল রাখার উপায় গুলো সম্পর্কে।

আশা করি, আপনাকে সব কিছু ভালমত বুঝিয়ে বলতে পেরেছি ও এই আর্টিকেল থেকে আপনি নতুন কিছু জানতে পেরেছেন।

আমরা মনে করি, এই আর্টিকেলে আপনার সাথে যে বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে উক্ত বিষয় গুলো মেনে নিয়ে মোবাইল চার্জ করবার অভ্যাস করে তুললে অবশ্যই battery life cycle বাড়িয়ে নিতে পারবেন।

যদি আপনার এখনও মোবাইল চার্জে দেওয়ার নিয়ম ও মোবাইল ব্যাটারি ভাল রাখার উপায় সম্পর্কে আরও কিছু প্রশ্ন বা মতামত থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে আমাদের তা জানাতে পারেন।

Hi, i'm Akash Golder, Author & founder of DotBangla. A blog that provides authentic information regarding technology, blogging, SEO, online earn money, how to guide & much more.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *